- Advertisement -

মাছি পোকা দমনে বিষটোপ ব্যবহার

300

- Advertisement -

 

বিষটোপ ফাদ তৈরির কলাকৌশল

কুমড়া জাতীয় ফসলের ফলের মাছি পোকা দমনে কাযর্করী ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তি। প্রযুক্তিটি কৃষক নিজেই ঘরে বসে অত্যন্ত স্বল্প খরচে তৈরি করতে পারে। বিষটোপে পূর্ণাঙ্গ পুরুষ ও স্ত্রী মাছি পোকা আকৃষ্ট হয় ও মারা যায়। সাধারণত করলা, শসা, লাউ, মিষ্টি কুমড়া, চাল কুমড়া, ঝিংগা, চিচিংগা, পটল, উচ্ছে, ধুন্দল, খিরা, কাকরোল, বাংগী এমনকি তরমুজ ক্ষেতেও বিষটোপ ব্যবহার করা যায়।

বিষটোপ তৈরির কাচামাল হিসেবে পাকা মিষ্টি কুমড়া, মিপসিন বা সেভিন পাউডার, মাটি বা প্লাস্টিকের পাত্র ও তিনটি বাশের খুটি প্রয়োজন এবং পরিমাণমতো পানি। 

বিষটোপ প্রস্তুত করতে প্রথমে ১০০ গ্রাম পরিমাণ পাকা মিষ্টি কুমড়া কুচি কুচি করে কেটে তা থেতলিয়ে ০.২৫ গ্রাম মিপসিন ৭৫ পাউডার অথবা সেভিন ৮৫ পাউডার বা সানটান ৫০ বা সেকুফেন ৮০ পাউডার এবং ১০০ মিলি পানি মিশিয়ে পেষ্ট তৈরি করতে হবে । অত:পর মাটি বা প্লাস্টিকের পাত্রে  উক্ত পেষ্ট রেখে তিনটি খুটির সাহয্যে এমনভাবে স্থাপন করতে হবে যাতে বিষটোপের পাত্রটি মাটি থেকে ০.৫ মি উচুতে/সংশ্লিষ্ট সবজি বা ফলের কাছা কাছি থাকে।

বিষটোপের পাত্রটি ৩টি খুঁটির মাথায় অন্য একটি বড় আকারের চেপ্টা  পাত্র দিয়ে ঢেকে দিতে হবে যাতে বৃষ্টির পানি বা রোদে নষ্ট না হয়। বিষটোপ তৈরির পর ৩-৪ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করে তা ফেলে দিয়ে আবার নতুন করে তৈরি বিষটোপ ব্যবহার করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন বিষটোপ কখনও শুকিয়ে না যায়। তবে গরমকালে ২ দিন এবং শীতকালে ৪ দিন পর্যন্ত বিষটোপ রাখা যায়। 

সবচেয়ে ভাল ফলাফল পেতে বিষ টোপ ফাঁদ  জমিতে ক্রমানুসারে ১২ মিটার দূরে দূরে স্থাপন করতে হবে। তবে মাছি পোকার সংখ্যা বিবেচনা করে হেক্টর প্রতি ২০-৪০ টি বিষটোপ ব্যবহার করা যেতে পারে।

উল্লেখ্য সেক্স ফেরোমন ট্রেপ শুধু পুরুষ মাছি পোকাকে মারে তবে বিষটোপে পুরুষ স্ত্রী দুটোই মরে। 

ছবি কৃতজ্ঞতা: আব্দুল মালেক স্যার। কৃষকের জানালা।

সংকলন: কৃষিবিদ মোহাইমিন।

 

- Advertisement -

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়, কিন্তু ট্র্যাকব্যাক এবং পিংব্যাক খোলা.