- Advertisement -

বারহাট্টার মাঠে মাঠে ব্রি ধান৭১ এর বিজয়

117

- Advertisement -

কৃষিতে বারহাট্টা…

আগাম, খরা সহনশীল জাত হিসেবে আমন মৌসূমে আলোড়ন সৃষ্টি করতে যাচ্ছে ব্রি ধান৭১। বারহাট্টার মাঠে গত মৌসুমে প্রথমবারের মতো আবাদ হয় জাতটি। কৃষি বিভাগের উদ্যোগে সংশ্লিষ্ট কৃষক দ্বারাই বীজ সংরক্ষণ করা হয়। এই মৌসুমে কৃষি বিভাগের বিশেষ সম্প্র্রসারণ কার্যক্রমের আওতায় প্রায় ১০০ জন কৃষকের দ্বারা মাঠে ব্রি ধান৭১ আবাদ করানো হয়। বারহাট্টার আবহাওয়ায় ব্রি ধান৭১ পারফরমেন্স খুবই ভালো। কৃষক জাতটি পেয়ে উপকৃত হয়েছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোহাইমিনুর রশিদ বলেন, ব্রি ধান৭১ জাতটির বিশেষত্ব হলো জাতটি আগাম ,জীবনকাল ১১৪-১১৭ দিন, অধিক ফলনশীল উপযুক্ত পরিবেশে ৫.০ থেকে ৬.০ টন ফলন হয়ে থাকে। চালের আকৃতি মাঝারি লম্বা ও মোটা এবং সাদা বর্ণের হয়ে থাকে। জাতটির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো খরা সহনশীল। আগাম হওয়ায় ব্রি ধান৭১ আবাদ করে বোরো আবাদের অন্তরবর্তীকালীন সময়ে অনায়শে সরিষা আবাদ করা যায়। তিনি আরোও বলেন, বারহাট্টার কৃষকেরা মূলত ধান চাষে অভ্যস্ত। আমন মৌসুমে উফশী হিসেবে ব্রি ধান৩২ আবাদের প্রতি বেশ ঝোক রয়েছে। তবে ব্রি ধান৩২ এর জীবনকাল প্রায় ১৩০ দিন। তাই ব্রি ধান৩২ আবাদের পরবর্তীতে বোরো পযন্ত মাঠ ফাকা থাকে। ফসল আবাদ করার সুযোগ পাওয়া যায় না। কৃষকের কৃষিতে লাভ নিশ্চিত করতে ব্রি ধান৭১ হতে পারে মোক্ষত হাতিয়ার। কৃষিতে অধিক লাভ নিশ্চিত করতে ব্রি ধান৭১ আবাদ করে সরিষা চাষের মহাকৌশলটি খুবই কার্যকরী কৌশল। বারহাট্টার আগামির কৃষিতে ব্রি ধান৭১ এর বিজয় সুনিশ্চিত।

 

- Advertisement -

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়, কিন্তু ট্র্যাকব্যাক এবং পিংব্যাক খোলা.