- Advertisement -

রোপা আমনের আদর্শ  বীজতলা তৈরি ও  পরিচর্যা 

রোপা আমনের আদর্শ  বীজতলা তৈরি ও  পরিচর্যা 

1,073

- Advertisement -

রোপা আমনের আদর্শ  বীজতলা তৈরি ও  পরিচর্যা 

কৃষিবিদ মোহাইমিন

মূল জমিতে রোপণের পূর্বে যে স্থানে সাময়িকভাবে চারা উৎপাদন করা হয় তাকে বীজতলা বলে। রোপা আমনের জন্য আমাদের দেশে চাষীরা ভেজা বীজতলা করে থাকে। বীজতলার জন্য যথাসম্ভব বাড়ির কাছাকাছি উর্বর এটেল দো-আঁশ মাটি, পর্যাপ্ত আলো বাতাসযুক্ত স্থান এবং সেচ ও নিষ্কাশনের সুবিধা আছে এমন জমি নির্বাচন করা উচিত।  জমি অনুর্বর হলে প্রতি শতকে ২০ কেজি হারে জৈব সার (পচা গোবর বা আবর্জনা) সুন্দরভাবে ছড়িয়ে দিতে হবে। এরপর জমিতে দুই থেকে সোয়া দুই ইঞ্চি পানি রেখে ১/২ চাষ ও মই দিয়ে ৭-১০ দিন পানি আটকিয়ে রেখে দিতে হবে। আগাছা, খড় পচে গেলে আবারও চাষ ও মই দিয়ে কাদা করে জমি তৈরি করতে হবে।

আদর্শ বীজতলা বলতে জমির একপাশ থেকে ১.২৫ মিটার চওড়া করে লম্বালম্বিভাবে বীজতলা তৈরি করাকে বুঝায় ।  এ অবস্থায় জমিকে কয়েক খন্ডে বা বেডে ভাগ করে নিতে হবে।  দুই বেডের মাঝে ৫০ সেমি চওড়া এবং চার ইঞ্চি গভীর নালা তৈরি করে নিতে হবে।  নির্ধারিত জমির দুইপাশের নালার মাটি দিয়ে বেড তৈরি করা যায়। এরপর বেডের ওপরের মাটি বাঁশ বা কাঠের চ্যাপ্টা লাঠি দিয়ে সমান করতে হবে। এভাবে তৈরি এক শতাংশ পরিমাণ বীজতলাতে যে চারা হবে তা দিয়ে ২৫-৩০ শতাংশ জমিতে রোয়া বা চারা লাগানো যায়। বেড তৈরির ৩/৪ ঘণ্টা পর বীজ বোনা উচিত। বীজতলা তৈরির জন্য দুই বেডের মাঝে যে নালা তৈরি করা হয় তা খুবই প্রয়োজন। এ নালা যেমন সেচের কাজে লাগে তেমনি পানি নিষ্কাশন বা প্রয়োজনে সার বা বালাইনাশক প্রয়োগ করা সহজ হয়। বীজ বপনের সময় ধানের তুষ বা ছাই ছিটিয়ে দিলে পরবর্তীতে চারা তুলতে সুবিধে হয়। 

বীজতলা পরিচর্চার ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে চারার বাড়-বাড়তি কম হলে বা চারা হলদে হয়ে গেলে প্রতি বর্গ মিটারের জন্য ৭ গ্রাম ইউরিয়া ও ১০ গ্রাম জিপসাম প্রয়োগ করতে হবে। বীজতলায় থ্রিপস বা উকুন পোকার আক্রমণ দেখা দিলে সাদা সুতি কাপড় পানিতে ভিজিয়ে বীজতলার ওপর টেনে দিন এবং আটকে যাওয়া পোকা পিশে মেরে ফেলুন। এছাড়া প্রতি বর্গ মিটারের জন্য ৭ গ্রাম হারে ইউরিয়া সার প্রয়োগ করুন এবং ঝাঁঝরি দিয়ে পানি স্প্রে করুন।

বীজ হার বীজতলায় বীজ বপন : প্রতি ১ বর্গ মিটারে ৮০-১০০ গ্রাম বীজ বপন করা দরকার। এক বিঘা জমির জন্য ৩-৪ কেজি বীজের প্রয়োজন।  বীজ বেডের ওপর থাকে বলে পাখিদের নজরে পড়ে। তাই বপনেরর ৪/৫ দিন পর্যন্ত পাহারা দিতে হবে এবং নালা ভর্তি করে পানি রাখতে হবে। আষাঢ় মাসই বীজ বপনের উপযুক্ত সময়।

তবে স্বল্পমেয়াদি জাতের বীজ  ১৫ আষাঢ়ের পূর্বে বপন করা ঠিক নয়। 

আমন ধানের চারার বয়স ২৫-৩০ দিন হলেই মূল জমিতে অবশ্যই রোপন করা উচিত। 

 

 

- Advertisement -

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়, কিন্তু ট্র্যাকব্যাক এবং পিংব্যাক খোলা.